চাঁদে প্রথম নারী পাঠাচ্ছে NASA

355

২০২৪ সালের মধ্যে চাঁদে প্রথম নারী প্রেরণের পরিকল্পনা করেছিলো NASA। এবার এ মিশনের আনুষ্ঠানিক নাম ঘোষণা করা হয়েছে। গ্রিক দেবতা Apollo-এর যমজ বোন এবং চন্দ্রদেবীর সাথে মিল রেখে নাম রাখা হয়েছে Artemis। ’৭০ দশকে Apollo mission চাঁদে নিয়েছিলো প্রথম পুরুষ, এবার Apollo-এর বোন নিবে প্রথম নারী।

চাঁদে প্রথম নারী পাঠাচ্ছে NASA

NASA administrator জিম ব্রিন্ডেন্সটাইন বলছিলেন, বিষয়টি বেশ সুন্দর যে Apollo-এর ঠিক ৫০ বছর পর Artemis চাঁদে নিয়ে যাবে পরবর্তী পুরুষ এবং প্রথম নারী। তিনি আরো বলেন, তার ১১ বছর বয়সী কন্যাকে চন্দ্রজয়ী পরবর্তী নারী দেখতে চান।

NASA কর্তৃক ২০২৪ নাগাদ চন্দ্রভ্রমণের বাজেট অনুরোধের পর গত ১৩ই মে সোমবার ব্রিন্ডেন্সটাইন মিশনের নতুন নাম ঘোষণা করেন। মার্চ মাসে যুক্তরাষ্ট্রের ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স NASA বরাবর চন্দ্রযাত্রার কার্যক্রম ত্বরান্বিত করার আহবান জানান এবং আগামী ৫ বছরের মধ্যে চন্দ্র মিশন বাস্তবায়নের কথা বলেন। তখন থেকেই ব্রিন্ডেন্সটাইন একজন পুরুষ এবং একজন নারীকে চাঁদে পাঠানোর ব্যাপারে জোর দিয়ে আসছিলেন।


গত এপ্রিলে Colarado Springs- অনুষ্ঠিত Space Symposium conference-এ ব্রিন্ডেন্সটাইন বলছিলেন, আগামী ৫ বছরের মধ্যে চাঁদে প্রথম নারী হবেন একজন আমেরিকান। ঘোষণাটি কোনো অংশেই ‘কেবলই কল্পনা’ নয়, বরং NASA-এর জন্য একটি বিশাল পদক্ষেপ।

NASA-এর Artemis program এখনো শিশু অবস্থাতেই আছে। গভীর মহাশূণ্যে মানুষ প্রেরণের উপযোগী rocket এবং crew capsule তৈরিতে এগিয়ে গিয়েছে NASA, Artemis নিয়ে এখনো সেরকম অগ্রগতি লক্ষণীয় নয়। এজন্য নতুন hardware তৈরিও প্রয়োজন, যার মধ্যে lunar landerঅন্তর্ভুক্ত। যাত্রার বাজেট মার্কিন কংগ্রেসে পাশের অপেক্ষাও করতে হবে NASA-কে। সুতরাং নাম সুমধুর হলেও যাত্রা অতোটা সুগম নয় এখনো।

পোস্টটি ভালো লাগলে Like দিন, পোস্টটি সম্পর্কে কোন কিছু জানার থাকলে অবশই কমেন্ট করবেন এবং প্রতিদিন প্রযুক্তির সব letest নিউজের Update পেতে (প্রযুক্তির আলো.কম) এর সাথে থাকুন ।     

আরও পড়ুনঃ

চাঁদের অন্ধকার প্রান্তে রহস্যময় খনিজ পদার্থ পেলো চীনের রোভার

ট্রাম্পের কথা শুনলো Google: Huawei-কে তিন মাসের সাময়িক অবকাশ

খুব শীঘ্রই বাজারে আসছে Google Pixel 4 এবং Pixel 4 XL

জাপানের ৪০০ কিলোমিটার গতির বুলেট ট্রেনের পরীক্ষা শুরু করেছে