জাপানের ৪০০ কিলোমিটার গতির বুলেট ট্রেনের পরীক্ষা শুরু করেছে

365

জাপানের নতুন বুলেট ট্রেন Alfa-X পরীক্ষণ শুরু হয়েছে। Kawasaki Heavy Industries এবং Hitachi নির্মিত ট্রেনটির সর্বোচ্চ গতি ঘন্টায় ৪০০ কিলোমিটার (ঘন্টায় ২৪৮ মাইল)। তবে ২০৩০ সালে আনুষ্ঠানিকভাবে চালু হলে যাত্রীসমেত ট্রেনটি চলতে পারবে ঘন্টায় ৩৬০ কিলোমিটার (ঘন্টায় ২২৪ মাইল) গতিতে। DesignBoom জানাচ্ছে, আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরুর আগে বছর ধরে পরীক্ষণ চালাতে হবে। জাপানের আওমরি এবং সেন্দাইয়ের মাঝে রাত্রিকালীন পরীক্ষণটি চলার কথা।

জাপানের ২৪৮ মাইল গতির বুলেট ট্রেনের পরীক্ষা শুরু করেছে

উচ্চ গতি সামাল দিতে Alfa-X-এর সামনের aerodynamic nose নির্মাণ করা হয়েছে ৭২ ফুট লম্বা। এর মাধ্যমে চাপ এবং শব্দ কমানো উদ্দেশ্য। Designboom আরো জানিয়েছে ৫২ ফুটের একটী nose-এর পরীক্ষণও চালানো হবে। ট্রেনটির ব্রেক কষার জন্য নিচ দিকে আছে magnetic plates এবং উপরে আছে roof-mounted air brakes।

২০৩০ সাল নাগাদ Alfa-X হতে যাচ্ছে পৃথিবীর সবচেয়ে দ্রুতগামী ট্রেন। তবে সব মিলিয়ে সবচেয়ে দ্রুতগামী নয়। সাংহাইয়ের চুম্বকচালিত Maglev ট্রেনের গতি ঘন্টায় ৪৩১ কিলোমিটার (ঘন্টায় ২৬৮ মাইল)। Bloomberg জানাচ্ছে যে জাপার ২০২৭ সালে তার নিজস্ব Maglev চালু করছে টোকিও-নাগোয়া রুটে, যার গতি হবে ঘন্টায় ৫০৫ কিলোমিটার (ঘন্টায় ৩১৪ মাইল)।


২০৩০ সালে বুলেট ট্রেন রেললাইনে নামানোর আগে জাপান তার Shinkansen বুলেট ট্রেনের Supreme version আনার চিন্তা করছে। সম্ভবত তার আগমন হবে ২০২০ সালের টোকিও অলিম্পিক গেমসে। ট্রেনটির গতি আগের মতোই ঘন্টায় ১৮৬ মাইল হলেও ওজনে হবে আরো হালকা, শক্তি সঞ্চয় করবে আরো বেশি। যাত্রীদের জন্যেও হবে আরো অধিক আরামদায়ক।

পোস্টটি ভালো লাগলে Like দিন, ট্রেনটি সম্পর্কে কোন কিছু জানার থাকলে অবশই কমেন্ট করবেন এবং প্রতিদিন প্রযুক্তির সব letest নিউজের Update পেতে (প্রযুক্তির আলো.কম) এর সাথে থাকুন ।    

আরও পড়ুনঃ চাঁদের অন্ধকার প্রান্তে রহস্যময় খনিজ পদার্থ পেলো চীনের রোভার