Apple বাজারে নিয়ে এলো iPod Touch 2019

137

২০১৫ সালে নতুন Avengers এবং Star Wars মুভি মুক্তি পেয়েছে। সাথে মুক্তি পেয়েছিলো Apple-এর iPod Touch। ৪ বছর পর আরেক নতুন Avengers এবং Star Wars মুভি মুক্তি পেয়েছে। সাথে মুক্তি পেয়েছে Apple-এর আপডেট করা iPod Touch। তবে মনে হচ্ছে ইতিহাস ঘুরে ঘুরে বারবার আসে। আগের iPod নতুন iPod উভয় দেখতে একই রকম। Apple-এর seventh generation iPod touch দ্বিগুণ গতিসম্পন্ন। এতে চলে iOS 13, কেননা ভেতরে রয়েছে A10 Fusion processor। এ processor iPhone 7-এ ব্যবহৃত হয়েছিলো।

Apple বাজারে নিয়ে এলো iPod Touch 2019

তবে কেন Apple ৪ বছরের পুরোনো iPod-এ processor আপডেট করলো? কে এখনো পুরোনো দিনের iPod ব্যবহার করে? ছোট্টো, সুন্দর দেখতে এ ডিভাইসটি ব্যবহার করতে মজা, তবে কেনার মতো নয়। iPod Touch যে অতো ভালো না, তা না। তবে অন্যান্য অপশনও হাতে আছে, যেমন iPhone XS।

তবে অনেক ক্ষেত্রই আছে যেখানে নতুন iPod ভালো কাজে দিবে। যেমন শিশুদের জন্য মোবাইল গেমিং, অথবা হাসপাতালের মেডিকেল রেকর্ড রাখার কাজে, অথবা অনুবাদ, অথবা খুচরা বা ফুড সার্ভিসে রেকর্ড রাখা ইত্যাদি।
কেউ কিনতে চাইলে 32GB variant-টি দারুণ হবে। দাম পড়বে ১৯৯ মার্কিন ডলার। রাখা যাবে ৪০০০ গান। বলতে গেলে Apple থেকে নতুন কিছু সাধ্যের মধ্যে কিনতে চাইলের এর জুড়ি আর হবে না। আর যদি একটু দাম বাড়াতে চায় কেউ, তবে iPhone 7 একবারে কিনলেই ভালো।


iPod ব্যবহার করে কে? এখনো অনেক ব্যবসা বিভিন্নভাবে iPod Touch ব্যবহার করে। Apple Store-এর প্রায় প্রত্যেক কর্মকর্তার iPod Touch আছে। নতুন iPod Touch পূর্বের মডেলের মতো একই আকারে রাখায় তাড়াতাড়ি পকেট থেকে ডিভাইস বের করে নেয়া বেশ সহজ হয়েছে। বিশেষ করে মোবাইল দিয়ে যেসব জায়গায় রেকর্ড-রেজিস্টার ইত্যাদি করা লাগে।
একই রকম কাজ Apple করেছিলো মার্চ মাসের iPad Mini এবং গত বছরের Mac Mini দিয়ে। এ হলো ৩টি উদাহরণ, যা দিয়ে বোঝা যায় Apple খরচ কমানো এবং ব্যবহারে সহজতা আনার দিকে মনোযোগী হচ্ছে।
iPod Touch আরেক টার্গেট শিশুরা। iPhone বা iPad দেয়ার আগে অনেক পিতামাতাই তাদের সন্তানের হাতে iPod দেন।

মার্চ মাসে Apple Arcade চালু করা হয়েছে। পিতামাতারা চাইলে শিশুকে ১৯৯ মার্কিন ডলার দিয়ে iPod Touch এবং একটি Apple Arcade subscription কিনে দিলে শিশুটি পাচ্ছে ১০০টি গেম। সেসবের দাম ২৯৯ মার্কিন ডলারের Nintendo Switch এবং ৫০-৬০ মার্কিন ডলারের flagship গেমের থেকে অনেক কম, কিন্তু খেলার মজা কোনো অংশেই কম না।


ছোটোদের জন্য iPod Touch হাতে ধরতে Switch থেকেও সহজ লাগবে। এটাও মনে রাখলে ভালো যে Apple Arcade গেমগুলোর মধ্যে কোনো কেনাকাটার বিষয় নেই। কাজেই ক্রেডিট কার্ডের উপর চাপ পড়বে না।
iTunes আর থাকছে না

অবশেষে iTunes থেকে সরে আসলো Apple। তবে এতে iPod-এর কাজ কমে আসলো নাকি? তবে কেউ কেউ iPod Touch-এ Spotify ডাউনলোড করে রাখছেন। ব্যবহার করতে ভালোই লাগছে তাদের মতে। iPhone XS Max থেকে iPod Touch বহন করা সুবিধা বেশি। ডিভাইসটিতে cellular antennae নেই, অর্থাৎ কেবল Wi-Fi থাকলে মিউজিক শোনা যাবে। অন্যান্য সময়ে Spotify Premium-এর মাধ্যমে মিউজিক ডাউনলোড করে রাখতে হতো, Wi-Fi-বিহীন জায়গাতে iPod Touch ব্যবহারযোগ্য হয়। iPod বড্ড সেকেলে


সব মিলিয়ে iPhone XS Max ব্যবহারের বদলে iPod Touch ব্যবহার কিছুটা অদ্ভুত শোনাবে। হতে পারে স্ক্রিন ছোটো, যা অনেকের মনোযোগের জন্য ভালো। তবে কেবল বোরিং অনুভব করলে ব্যবহার করার মতো, এমনটি নয়। হ্যাঁ, iPhone-এর নেশা কমাতে iPod Touch খুব যে উপযোগী, তাও কিন্তু নয়।
তবুও iPod Touch শক্তপোক্ত একটি ডিভাইস। কেনার আগে কিভাবে ব্যবহার করা যায়, সে বিষয়ে হালকা ভেবে নিলে মন্দ হয় না।

পোস্টটি ভালো লাগলে Like দিন, iPod সম্পর্কে কোন কিছু জানার থাকলে অবশই কমেন্ট করবেন এবং প্রতিদিন প্রযুক্তির সব letest নিউজের Update পেতে (প্রযুক্তির আলো.কম) এর সাথে থাকুন ।    

আরও পড়ুনঃ Apple বাজারে নিয়ে এসেছে Mac Pro 2019