Intel বাজারে নিয়ে এলো Dual Screen গেমিং ল্যাপটপ

404

আমরা একটি ল্যাপটপের কথা বলছি। ল্যাপটপটির দেখা মিলেছে Intel-এর স্যান্টা ক্ল্যারা কার্যালয়ে। দুটি স্ক্রিনের অদ্ভুত এক ল্যাপটপত এটি!

হয়তো জানার কথা Intel-এর মতো chip নির্মাতা প্রতিষ্ঠান কেবল processor-ই তৈরি করে না। বরং সেসব chip-এর জন্য নতুন বাজারও তৈরি করে। মোটা অংকের টাকা খরচ করে মানুষের চাহিদা সম্পর্কে তথ্য লাভ করে কম্পিউটার নির্মাতা প্রতিষ্ঠানগুলোর সাথে একসাথে কল্পনাকে বাস্তবে রূপ দেয়। মাঝে মাঝে পুরো একটি কম্পিউটার তৈরি করার ইতিহাসও আছে Intel-এর। যেমন গত বছর dual-screen Tiger Rapids আদতে আসলে Lenovo Yoga Book C930 ছিলো।

Intel বাজারে নিয়ে এলো Dual Screen গেমিং ল্যাপটপ

২০১৯ সালের জন্য Intel নোটবুকের চেয়ে আরেকটু উন্নত জিনিস বানানোর দিকে এগোচ্ছে। তেমনই একটি পদক্ষেপ Honeycomb Glacierগেমিং ল্যাপটপ। এখানে থাকছে দুটি স্ক্রিন; একটি 5.6-inch 1080p primary panel, আরেকটি 2.3-inch 1920 x 720 secondary screen। একটি হবে আরেকটির পরিপূরক।

বেশ কয়েক বছরের মধ্যে Intel বুঝতে পেরেছে secondary screen-এর চাহিদা আছে বাজারে। Razer-এর সাথে মিলে Switchblade তৈরি করে CES 2011 একদম মাত করে ফেলেছিলো। এটি ছিলো প্রথম Razer Blade ল্যাপটপ যেখানে পুরো একটি স্ক্রিনকে ডিভাইসের touchpad-এ রাখা যেতো।

তবে secondary screen-সম্পন্ন যেকোনো ল্যাপটপেই স্ক্রিন দেখার জন্য দেহ ঝুঁকিয়ে বসতে হতো। Asus ZenBook Pro Duo কিংবা HP Omen X 2S, সবগুলোতেই এ অবস্থা ছিলো। কিন্তু Honeycomb Glacier এবার তার secondary screen-এর জন্য আনলো অভিনব পদ্ধতি; রাখলো স্ক্রিন তুলে ধরার সুবিধা। প্রযুক্তি কতোটা এগিয়েছে; শূণ্যে তুলে যেকোনো কোণ মেপে স্ক্রিনটি ঠিক করা যায়, এবং সে অবস্থানেই স্ক্রিনকে দাঁড় করিয়ে রাখা যায়। পাশে একটা ছোটো কালো বাটন আছে, তাতে চাপ দিলে আস্তে করে নেমে যাবে স্ক্রিনটি।


Secondary screen-এর বিশেষ কব্জার নিচে Intel আরেকটি কাজ করেছে। স্ক্রিনের নিচে বসিয়ে দিয়েছে cooling mechanism। এতে motherboard-এর পাশে জমা অতিরিক্ত বাতাস বের করা সহজ হয়। মাত্র একটি ফ্যান দিয়েই প্রায় 195 watt পরিমাণ কাজ দিতে পারে। গেমিং ল্যাপটপ জগতের অন্যতম শক্তিশালী অংশগুলো সাজানো হয়েছে অতি সরু এ ল্যাপটপ বডিতে।

প্রোটোটাইপে দেয়া হয়েছে 45-watt 8-core Intel CPU এবংNvidia GeForce 1060 graphics। Chip clockকরা হয়েছে 60 watt এবং 95 watt।

স্ক্রিনের কব্জার সাথে Intel আরো যোগ করেছে Tobii eye-tracking camera। হঠাৎ মনে হতে পারে কোনো কাজ নেই এটির, অথবা অড গেইম বা ই-গেইম খেলার সময়ে চোখের নড়াচড়া নির্ণয় করার জন্য দেয়া হয়েছে। কিন্তু কাজ আরো আছে। ক্যামেরাটির মাধ্যমে ক্ষণিকের মধ্যেই ল্যাপটপের secondary screen-এর দিকে তাকানো যাবে। ফলে একই সাথে Twitch দর্শকদের খেলা দেখানো, Discord বন্ধুদের সাথে কথা বলা এমনকি Slackসহকর্মীদের সাথে কথা বলা সম্ভব হবে গেম খেলতে খেলতেই। নতুন নতুন বলে হালকা কিছু সফটওয়্যার বাগ আছে, তবে চ্যাট উইন্ডোতে তাকানো মাত্রই টাইপ করা—বিষয়টি অনেকটা কল্পনার মতোই।

Honeycomb Glacier-এর জন্য এই ‘নতুন নতুন’ বিষয়টিই যেন বিশেষত্ব তৈরি করছে। এটি কেবল একটি প্রোটোটাইপই নয়, বরং এমন একটি প্রোটোটাইপ যা স্বয়ংক্রিয় জগতের secondary screen ব্যবহার করে। Intel-এর প্রকৌশলীরা বলছেন বাটনবিহীনtrackpadকিংবা secondary screen-এর আশেপাশে বড় bezel তাদের পছন্দ না। এক ব্যবহারকারী Adobe Premiere timeline-এ কিছু একটা টেনে secondary screen-এ নিতে কিছুটা সমস্যাবোধ করছিলেন। প্রকৌশলীরা তাতে কিন্তু অবাক হননি।


তবে ডিভাইসটির প্রোটোটাইপই যদি এতটা জবরদস্ত হয়, না জানি মূল সংস্করণে কি হবে!

ডিভাইসটির সকল অংশ যেন secondary screen-এর সাথে অদ্ভুতভাবে সামঞ্জস্যশীল। Intel-এর PC Innovation কর্মকর্তাদের জিজ্ঞেস করা হয়েছিলো ল্যাপটপটি আদৌ বের হবে কিনা। তারা ইতিবাচক উত্তর দিয়েছেন। তারা আরো স্বীকার করছে Asus ZenBook Pro Duo-এর মতো এ ল্যাপটপে খোদাই করা ডিজাইন দেয়া সম্ভব। তবে এরকম কোনো প্রোটোটাইপ এখনো তৈরি করা হয়নি।

Intel-এর মুরালি বিরামানি বলছেন, Intel যখন Ultrabook নিয়ে হাজির হয়েছিলো, তা দেখেই এক কম্পিউটার নির্মাতা নতুন আইডিয়াটি দিয়েছিলেন।

দেখা যাক কি হয়।

পোস্টটি ভালো লাগলে Like দিন, ল্যাপটপটি সম্পর্কে কোন কিছু জানার থাকলে অবশই কমেন্ট করবেন এবং প্রতিদিন প্রযুক্তির সব letest নিউজের Update পেতে (প্রযুক্তির আলো.কম) এর সাথে থাকুন ।   

আরও পড়ুনঃ Asus ZenBook ও VivoBook বাজারে এসেছে Touchscreen Trackpad নিয়ে